শিরোনাম

» ইন্দ্রমোহনের মিষ্টি : ঐতিহ্যর ১২৮ বছর

ইন্দ্রমোহনের মিষ্টি : ঐতিহ্যর ১২৮ বছর

খুলনার ঐতিহ্যবাহী মিষ্টির দোকান ইন্দ্রমোহন সুইটস ১২৮ বছরের পুরনো। দক্ষিণাঞ্চলে মিষ্টির জন্য এটি প্রসিদ্ধ। শুধু এর রসগোল্লা ও পানতোয়া খেতেই খুলনায় বেড়াতে যান অনেক ভোজনরসিক।

খুলনা শহরের বড় বাজারে ১৮৯০ সালে ইন্দ্রমোহন সুইটস প্রতিষ্ঠা করেন ইন্দ্রমোহন দে। এটাই এই জেলার সবচেয়ে পুরনো মিষ্টির দোকান। বাইরে ও রান্নাঘরে তেমন চাকচিক্য নেই। মিষ্টির প্যাকেটও আহামরি নয়। তবে আদি মিষ্টির দোকানটির বিশেষ ধরনের পানতোয়ার খ্যাতি রয়েছে। এছাড়া গরম গরম মিষ্টি খাওয়া যায় এখানে।

ইন্দ্রমোহন সুইটসে পিরিচে মিষ্টি পরিবেশন করা হলেও কোনও চামচ পাওয়া যায় না। বাসনের ওপর দেওয়া হয় কলাপাতা। তার ওপরে রসগোল্লা, পানতোয়া বা সন্দেশ। কাঠের চেয়ারে বসে হাত দিয়েই খেতে হয় মিষ্টি।

ইন্দ্রমোহন সুইটসের অন্যতম স্বত্বাধিকারী সঞ্জয় দে বলেন, ‘তিন পুরুষের মিষ্টির দোকান আমাদের। দাদা যখন এই দোকান করেছিলেন তখন থেকেই এখানে হাত দিয়েই মিষ্টি খাওয়ার প্রচলন রয়েছে। আমরা চামচ ব্যবহার করি না।